বাংলা

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় ১০ লাখ মানুষের প্রাণহানি মহামারি রোধে মার্কিন ব্যর্থতার দলিল: সিআরআই সম্পাদকীয়

CMGPublished: 2022-05-06 21:27:03
Share
Share this with Close
Messenger Pinterest LinkedIn

মে ৬: মার্কিন গণমাধ্যম এনবিসি জানায়, গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড-১৯ মহামারিতে মৃতের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়েছে। সেদেশে মহামারি শুরুর ২৭ মাসের মধ্যে মৃতের সংখ্যা এ পর্যায়ে পৌঁছাল। তাদের মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি বর্তমান প্রেসিডন্ট বাইডেন সরকারের সময় মারা গেছে। জনসংখ্যার প্রতি ৩৩০ জনে একজন কোভিড-১৯’র কারণে মারা যায়, যা যুক্তরাষ্ট্রের দশম বৃহত্তম সিটি সান জোসের জনসংখ্যার সমান।

মার্কিন গণমাধ্যম এ বিপুল পরিমাণ ক্ষতিকে কল্পনাতীত বলে উল্লেখ করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের এ বাস্তবতা প্রমাণ করে যে, মার্কিন স্টাইলের মহামারি প্রতিরোধকাজ সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। আজ চীন আন্তর্জাতিক বেতারের এক সম্পাদকীয়তে এ মন্তব্য করা হয়েছে।

সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে, বিশ্বের একমাত্র সুপার পাওয়ার হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র মহামারি প্রতিরোধে ব্যর্থ দেশের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে। ব্যক্তিগত স্বার্থের ওপর গুরুত্ব, প্রাণের গুরুত্বকে উপেক্ষা করা, আধিপত্যের ওপর গুরুত্বারোপ এবং মানবাধিকার উপেক্ষা করা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের এ মানবিক দুর্যোগে পরিণতির কারণ।

সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে, মহামারির প্রাদুর্ভাবের প্রথম দিকে সে সময় সরকার প্রতিরোধকাজ নিয়ে রাজনীতি করে এবং অন্য দেশের ওপর দোষ চাপাতে থাকে। যার কারণে অনেক মার্কিন নাগরিক মহামারিতে প্রাণ হারিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র মুখে মুখে মানবাধিকারের কথা বলে, তবে দেশের নাগরিকদের প্রাণ বাচানোর অর্থ ইউক্রেন সহায়তায় ব্যবহার করে। সে সব অর্থ পূর্ব ইউরোপে মোতায়েন সেনা এবং মিত্র দেশকে অস্ত্র সরবরাহেও ব্যবহৃত হয়েছে। মার্কিন রাজনীতিকদের চোখে বিদেশে আধিপত্য মার্কিন নাগরিকের প্রানের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

Share this story on

Messenger Pinterest LinkedIn