বর্তমান স্থান: মূল পাতা > 孟加拉语旅游 > প্রধান লেখা

তিব্বতের পথে পথে (৬)

2019-08-02 19:49:33

নিংছ্রি শহরের লুলাং টাউনের আন্তর্জাতিক পর্যটনকেন্দ্র, প্রদর্শনীকেন্দ্র ও আরও একটি পার্বত্য গ্রাম পরিদর্শনের পর সেদিন বিকেলে লুলাং টাউনের সবচেয়ে ধনী গ্রাম ভ্রমণের মধ্য দিয়ে শেষ হয় দিনটি। পার্বত্য পথ বেয়ে বিদেশি প্রতিনিধিদলটি লুলাং টাউনের চমত্কার একটি রেস্তোরাঁয় গিয়ে পৌঁছায়। দুই ধারে গগনচুম্বী পর্বতসারি মাঝখানে ৩/৪ কিলোমিটার প্রশস্ত সমতল ভূমি, তারই ওপর এতসব স্থাপনা গড়ে তোলা হয়েছে। কোথাও কোথাও পার্বত্য এ উপত্যকার প্রশস্ততা আরও বেশি। আন্তর্জাতিক পর্যটন শহরটিও এখানেই তৈরি হয়েছে। শহরটি বেশ ছিমছাম- কেমন যেন চলচ্চিত্রের শহরের মতো! আসলে পর্যটন শহর হওয়ায় পর্যটকদের উপযোগী করে বেশ টেকসই গড়নে তৈরি করা হয়েছে। শহরের আগাগোড়া পুরোটাই পাথর দিয়ে মোড়ানো। তার ওপর দ্বিতল বাড়িই বেশি। দর্শনার্থীরা প্রথমেই স্থানীয় গ্রন্থাগার দিয়ে শহর ভ্রমণ শুরু করে। বাহির থেকে কাঠের দুইতলা স্থাপনা। ভেতরে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সাজানো আছে থরে থরে বইপত্র। স্থানীয় বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিশু-কিশোর শিক্ষার্থীরা এই গ্রন্থাগার ব্যবহার করে। গ্রন্থাগার হলেও তা এক ধরনের প্রদর্শনীকেন্দ্র। এখানে তিব্বতি ঐতিহ্য প্রদর্শন করা হয়েছে, স্থানীয় পোশাক-আশাক তুলে ধরা হয়েছে। মূলত গ্রন্থাগার থেকেই শুরু হয়ে গেছে পর্যটন শহরের অন্যতম আকর্ষণ এই 'জাদুঘরটি'। এটি একটি সাধারণ তিব্বতি গ্রাম হলেও বিভিন্ন প্রয়োজনে লেজার রশ্মি দিয়ে খোদাই করার মেশিন আনা হয়েছে। অবাধ তথ্য প্রবাহ নিশ্চিত করতে ইন্টারনেটের ব্যবস্থা আছে। বিভিন্ন বুকলেট/লিফলেট দেখা যায়। প্রাচীনকাল থেকে ব্যবহৃত বিভিন্ন তৈজসপত্রের সংগ্রহ আছে এক কোণায়। দেখা মিলল, পাথরের একটি ভারি পাত্র। যেন একটি প্রাকৃতিক ফ্রিজ। পাত্রটি একটি বড় ধরনের বোল বা পাতিলের মতো। ঢাকনার ওজন প্রায় ৩ কেজি। পাত্রের ওজন ৭/৮ কেজি। বড় একটি আস্ত পাথর খোদাই করে এমন একটি পাত্র তৈরি করা হয়। বাইরের চরম গরম থেকে এই পাত্রটি ভেতরের খাবারকে ঠাণ্ডা রাখে। জাদুঘরের গাইড জানালো, তিব্বতবাসী এমন পাত্র ব্যবহার করে আসছে দীর্ঘদিন। আর দীর্ঘদিন ব্যবহার করতে থাকলে ক্রমান্বয়ে এসব পাত্রের ওজন বাড়তে থাকে। বেশ চমত্কার পাথুরে পাত্রটি লিংচ্রি শহরের পাঁচ তারকা হোটেলের বিক্রয়কেন্দ্রগুলোতে শোভা পাচ্ছিল। প্রাকৃতিক ফ্রিজ- এই পাথুরে পাত্রটি আসলেই বেশ আকর্ষণীয়। কিন্তু তার ওজন এতোই বেশি যে তা কোনো পর্যটকই কেনার সাহস করেনি।

1234...>
খবর :
সর্বশেষ খবর চীন বিশ্ব দক্ষিণ এশিয়া

চীনা ভাষা শিখুন সংস্কৃতি জীবন বাণিজ্য চীনের বিশ্বকোষ