বর্তমান স্থান: মূল পাতা > 孟加拉语旅游 > প্রধান লেখা

পবিত্র সিটি-লাসা

2017-03-15 16:28:28

 এখন আপনাদের নিয়ে বেড়াতে যাবো চীনের তিব্বতে। গত সপ্তাহের অনুষ্ঠানে আমরা তিব্বতের দর্শনীয় স্থানগুলো সম্পর্কে একটি সংক্ষিপ্ত ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করেছি। আজকের এ অনুষ্ঠানে আমরা আপনাদের তিব্বতের রাজধানী লাসা ও এর আশেপাশের দর্শনীয় স্থানগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করবো।

লাসা 

বলা হয়, লাসা শহরে সংস্কৃতি ও প্রাকৃতিক দৃশ্য মিলেমিশে একাকার হয়েছে। আপনি যদি ইতিহাস ও স্থাপত্য পছন্দ করেন, তাহলে বুতালা রাজপ্রাসাদ,   নর্বুলিংকা ও তিব্বত জাদুঘর দেখতে যেতে পারেন।  যদি ধর্ম সম্পর্কে আপনার আগ্রহ বেশি থাকে, তাহলে তা চাও মন্দির, চে পাং মন্দির ও সে লা মন্দিরসহ নানা ধর্মীয় পবিত্র স্থানে বেড়াতে যেতে পারেন। প্রাকৃতিক দৃশ্য যদি আপনাকে বেশি টানে, তবে আশেপাশের ইয়াং পা ছিং ও নামুছুওয়ে যেতে পারেন।

বুতালা প্রাসাদ

বুতালা প্রাসাদ

   লাসা শহরে বুতালা রাজপ্রাসাদ শহরটির প্রতীক। এটি বিশ্বে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে সবচেয়ে উঁচুতে অবস্থিত রাজপ্রাসাদ এবং তিব্বতের সমৃদ্ধ সংস্কৃতির প্রতীক। অতীতকালে থু ফান রাজবংশের রাজা শি চুন ও ওয়েন ছেং রাজকন্যার বিয়ের জন্য নির্মিত এ রাজপ্রাসাদ। পরবর্তী কালে ১৩০০ বছর ধরে নানা সংস্কারকাজের পর প্রাসাদটি আজকের রূপ নিয়েছে। রাজপ্রাসাদে মাত্র দুটি রঙ ব্যবহার করা হয়েছে: লাল ও সাদা। লাল রঙের ভবন ধর্মীয় অনুষ্ঠান আয়োজনের স্থান এবং একে  ঘিরে সাদা রঙের ভবনটি লামাদের বসবাস ও কাজের স্থান। পাহাড়ের নিচে সুয়ে ছেং ও পিছনের চুং চিয়াও লু খাং পার্ক বুতালা রাজপ্রাসাদের অতিরিক্ত অংশ।  রাজপ্রাসাদ ভ্রমণ করলে দু'থেকে তিন ঘন্টা লাগে। পিক সিজনে টিকিটের দাম ২০০ ইউয়ান এবং অফ পিক সিজনে দাম ১০০ ইউয়ান।

খবর :
সর্বশেষ খবর চীন বিশ্ব দক্ষিণ এশিয়া

চীনা ভাষা শিখুন সংস্কৃতি জীবন বাণিজ্য চীনের বিশ্বকোষ