বর্তমান স্থান: মূল পাতা > খবর > সর্বশেষ খবর > প্রধান লেখা

ভিয়েতনামে এপেক নেতাদের অনানুষ্ঠানিক সম্মেলনে চীনা প্রেসিডেন্টের ভাষণ

2017-11-12 14:58:52

নভেম্বর ১২: এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের বিভিন্ন পক্ষের উচিত্ অনবরত সৃজনশীলতাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া, দৃঢ়ভাবে উন্মুক্ততা সম্প্রসারণ করা, সক্রিয়ভাবে সহনশীল উন্নয়ন অনুসরণ করা, অংশীদারিত্বের সম্পর্কের বিষয় বাড়াতে নিরলস প্রচেষ্টা চালানো এবং বিশ্বের নতুন দফার উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি বাস্তবায়ন করা।

গতকাল (শনিবার) ভিয়েতনামের দা নাং শহরে অনুষ্ঠিত এপেকের ২৫তম নেতাদের অনানুষ্ঠানিক সম্মেলনে চীনা প্রেসিডেন্ট সি তাঁর ভাষণে একথা বলেন।

‘হাতে হাত ধরে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সহযোগিতা ও অভিন্ন কল্যাণবিষয়ক নতুন অধ্যায় উন্মোচন করা' শীর্ষক এক ভাষণে প্রেসিডেন্ট সি বলেন, তিন বছর আগে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করতে আমরা বেইজিংয়ে মিলিত হই। তিন বছরে বৈশ্বিক অর্থনীতি ধাপে ধাপে উষ্ণ হয়েছে। বিভিন্ন পক্ষের আস্থাও জোরদার হচ্ছে। বিভিন্ন পক্ষের বাস্তব ব্যবস্থা নিয়ে বিশ্বের নতুন দফার উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি বাস্তবায়নের প্রচেষ্টা চালানো উচিত্ বলে প্রেসিডেন্ট সি ভাষণে জোর দিয়ে বলেন। এ জন্য তিনি চারটি প্রস্তাবও উত্থাপন করেন।

ভাষণে প্রেসিডেন্ট সি আরো বলেন, গত মাসে সিপিসি'র ঊনবিংশ জাতীয় কংগ্রেস সাফল্যের সঙ্গে অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভবিষ্যতে চীনের উন্নয়নের পরিকল্পনা তৈরি হয়। আমরা ‘জনগণ কেন্দ্রিক' এই ধারণা দিয়ে আরো ভালোভাবে সমাজের সার্বিক উন্নয়ন এগিয়ে নিয়ে যাবো। আরো উন্নয়নশীল, সমৃদ্ধ ও উন্মুক্ত চীন অবশ্যই এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল এবং বিশ্বের জন্য আরো বেশি সুযোগ সৃষ্টি করবে এবং আরো বেশি অবদান রাখবে বলে প্রেসিডেন্ট সি উল্লেখ করেন।

সম্মেলনে ‘এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা (এপেক)-র ২৫তম নেতাদের অনানুষ্ঠানিক সম্মেলন ঘোষণা' প্রকাশিত হয়।

উল্লেখ্য, এবারের সম্মেলনের প্রতিপাদ্য হলো ‘নতুন চালিকাশক্তি সৃষ্টি করা এবং ভাগাভাগির ভবিষ্যত তৈরি করা'। সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন অর্থনৈতিক সত্তার নেতারা ‘ডিজিটাল যুগের সৃজনশীল প্রবৃদ্ধি, সহনশীলতা ও টেকসই কর্মসংস্থা' এবং ‘ভাগাভাগির ভবিষ্যত তৈরি করা'সহ বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে মতবিনিময় করেন। (লিলি/টুটুল)

খবর :
সর্বশেষ খবর চীন বিশ্ব দক্ষিণ এশিয়া

চীনা ভাষা শিখুন সংস্কৃতি জীবন বাণিজ্য চীনের বিশ্বকোষ