বর্তমান স্থান: মূল পাতা > জীবন > প্রধান লেখা

হার্ট সুস্থ রাখতে চান? আপনার জন্য বিশেষজ্ঞের ৭ পরামর্শ

2017-09-23 18:33:09

হার্ট সুস্থ রাখতে চান? আপনার জন্য বিশেষজ্ঞের ৭ পরামর্শ

হার্ট যতদিন চলবে, ততদিনই তো জীবন! হার্ট বন্ধ হয়ে গেল তো সব শেষ। এই হার্টকে সুস্থ রাখার প্রয়োজনীয়তা তাই বেশি ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ করে বলার কিছু নেই। হার্ট সুস্থ রাখতে বিশেষজ্ঞরা ৭টি পরামর্শ দিয়ে থাকেন। চলুন আজ জেনে নিই পরামর্শগুলো এবং মেনে চলি নিয়মিত।


পরামর্শ ১: ধূমপান করবেন না

হৃদরোগের প্রধান কারণ হলো ধূমপান; ধূমপানে বাড়ে রক্তচাপ, নিয়মিত ব্যায়াম করা হয়ে পড়ে কঠিন। আমেরিকান হার্ট এসোসিয়েশনের মতে ধূমপান হলো অকাল মৃত্যুর পহেলা নম্বর প্রতিরোধযোগ্য কারণ, আমেরিকাসহ অনেক দেশের জন্যই এই কথা প্রযোজ্য। যদিও ধূমপানের বদভ্যাস ছাড়া বেশ কঠিন, তবে একে ছাড়তে পারলে এর পুরষ্কার ও ফলাফল সর্বশ্রেষ্ঠ ও তাত্ক্ষণিক। ধূমপান ছাড়ার কয়েক দিনের মধ্যে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে আসবে। যেমন, এক বছরের মধ্যে ঝুঁকি কমে আসবে অর্ধেকে। মার্কিন কার্ডিওলজিস্ট ডা: নাইকা গোল্ডবার্গ বলেন, একটানা দশ বছর ধূমপানমুক্ত থাকলে অধূমপায়ীর পর্যায়ে নেমে আসা যায়।


পরামর্শ ২: বুকে ব্যথাকে অবহেলা করবেন না

বুকে ব্যথা হলে, তাকে অবহেলা করা যাবে না। দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। ব্যায়াম করার সময় যদি বুক ব্যথা করে, তবে সেটা বিপদসংকেত। অবশ্য অতিভোজনের পর ব্যথা হলে তা হজমের অসুবিধার কারণে হতে পারে। যদি মনে হয়, একটি হাতি বসে আছে বুকের উপর, শরীর ঘেমে ওঠে হঠাত করে, তখন দ্রুত হাসপাতালে যেতে হবে। মোদ্দাকথা, বুকের ব্যথা যেমনই হোক, দ্রুত ডাক্তার দেখান।


জেনেটিক কারণে একজন হৃদরোগে আক্রান্ত হতে পারেন। মা-বাবার যে-কোনো একজনের বা দু'জনেরনই যদি হৃদরোগ হয়ে থাকে, তাহলে পুরুষের বেলায় ঝুঁকি হয় দ্বিগুণ আর নারীর ঝুঁকি ৭০%। ২০১০ সালে আমেরিকান হার্ট এসোসিয়েশনের প্রতিবেদন তাই বলে। তবে, মানুষের জীবনযাপ পদ্ধতিও হৃদরোগের কারণ হয়ে থাকে। তারপরও যদি কেউ এ রোগে আক্রান্ত হয়েই যান, তবে জীবনযাপন পদ্ধতিতে পরিবর্তন এনে এ থেকে রেহাই পাওয়া যায় বা অন্তত ঝুঁকি কমিয়ে আনা যায়। জার্নাল অব আমেরিকান মেডিকেল এসোসিয়েশনে প্রকাশিত ১৯৯৮ সালের একটি গবেষণামূলক প্রবন্ধ অনুসারে, কোলেস্টেরল কমাবার ওষুধ স্ট্যাটিন গ্রহণ করে পারিবারিক ইতিহাস আছে এমন লোকের হৃদরোগের ঝুঁকিও কমানো যায়। কখনও কখনও এসব ব্যবস্থা গ্রহণ করে ঝুঁকি নিশ্চিহ্ন করাও সম্ভব। তবে, যাদের পিতা-মাতার কেউ হৃদরোগে আক্রান্ত হননি, তাদেরও নিশ্চিত হয়ে বসে থাকা উচিত নয়। জীবনকে সুন্দরভাবে ও স্বাস্থ্যসম্মতভাবে পরিচালিত করুন, সুস্থ থাকুন।

খবর :
সর্বশেষ খবর চীন বিশ্ব দক্ষিণ এশিয়া

চীনা ভাষা শিখুন সংস্কৃতি জীবন বাণিজ্য চীনের বিশ্বকোষ