বর্তমান স্থান: মূল পাতা > জীবন > প্রধান লেখা

ওজন কমাতে সহায়ক ফল

2017-07-27 21:02:51

ওজন কমাতে সহায়ক ফল

আধুনিক জীবনে সবাই ওজন নিয়ন্ত্রণে সচেতন। হ্যাঁ, কেউ কেউ আরো ওজন কমাতে চান। ওজন কমানোর ক্ষেত্রে কার্যকর কোনো উপায় আছে কি? সম্প্রতি স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইটে 'ওজন কমাতে সহায়ক ফল' শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। আজকের জীবন যেমন অনুষ্ঠানে আমরা এ বিষয় নিয়েই আলোচনা করবো।

এরকম ৯টি ফলের খবর পাওয়া গেছে। প্রথম ফলটি হলো।

কলা

আমরা জানি, এক বোল চালে ১৬০ ক্যালরি আছে। তবে একটি কলায় মাত্র ৮০ থেকে ১০০ ক্যালরি থাকে। যদি প্রত্যেক বেলায় এক বোল চাল বা ভাতের পরিবর্তে কলা খান, তাহলে ওজন কমাতে পারবেন আপনি। এভাবে প্রতিদিন শরীর থেকে ২০০ থেকে ৩০০ ক্যালরি কমানো সম্ভব। আরেকটি কথা, কলা খেলে পেট ভরে যায়। কলায় যেমন সমৃদ্ধ ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন রয়েছে, তেমনিও ত্বক মসৃণ করে কলা। আপনার রক্তে সুগার লেভেল ঠিক রাখে কলা। গবেষণা অনুযায়ী, প্রতিদিনকার খাদ্যাভ্যাসে কলা রাখলে ৪০% স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে যায়! তা ছাড়া, ভিটামিন বি৬, বি১২, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম শরীর থেকে নিকোটিনের প্রভাব দূর করতে সাহায্য করে। সুতরাং, ধূমপান ছেড়ে দেবার জন্য কলা'র জুড়ি নেই। পটাশিয়াম আপনার হার্টবিট ঠিক রাখে। অক্সিজেন মস্তিষ্কে নিয়মিত পৌঁছে দেয়, শরীরে পানির ভারসাম্য বজায় রাখে। যা প্রচুর পরিমাণে কলায় পাওয়া যায়।

আপেল:

আপেল বলতে গেলে সবার পরিচিত। আপেল ওজন কমাতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। আপনি তিনদিন ধরে আপেল ও পানি পান করুন। দেখবেন, তিন দিন পর আপনার ওজন ৩ থেকে ৫ কিলোগ্রাম কমে যাবে। কিন্তু, এই তিন দিন শুধুমাত্র আপেল আর পানি, এই দুটো ছাড়া আরও কিছুই খাওয়া যাবে না। অন্য কিছু খেলে এ পদ্ধতি অকার্যকর হয়ে পড়বে। কারণ আপেলের মধ্যে প্রচুর ফুড ফাইবার, যা আপনার পাকস্থলী ও কোলন পরিষ্কার রাখবে। সেই সঙ্গে, আপেলের পটাসিয়াম প্রস্রাবের দ্রুত প্রবাহে ভূমিকা পালন করে। আপেল ত্বকের সৌন্দর্য বজায় রাখার ক্ষেত্রে সহায়ক। এভাবে মাসে একবার করাই যথেষ্ট। তা নাহলে শরীর দুর্বল হয়ে যাবে।

খবর :
সর্বশেষ খবর চীন বিশ্ব দক্ষিণ এশিয়া

চীনা ভাষা শিখুন সংস্কৃতি জীবন বাণিজ্য চীনের বিশ্বকোষ