বর্তমান স্থান: মূল পাতা > সংস্কৃতি > প্রধান লেখা

চীন-জার্মানি মিডিয়া ব্যক্তিদের যৌথ উদ্যোগে নির্মিত ‘চায়না টি টাইম’

2019-02-05 16:44:40

সংস্কার ও উন্মুক্তকরণের ৪০ বছরে চীনের দ্রুত উন্নয়ন বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও মিডিয়ার দৃষ্টি আকর্ষণ করে। সাম্প্রতিক দুই বছরে কোনো কোনো জার্মান মিডিয়া চীনের প্রতি গভীর আগ্রহ ও কৌতূহলের কারণে ‘চায়না টি টাইম' নামে একটি টিভি অনুষ্ঠান নির্মাণে যুক্ত হয়। এভাবে চীন ও জার্মানির সাংস্কৃতিক বিনিময়ে আরো বেশি অবদান রাখা যাবে বলে তারা আশা প্রকাশ করে।

চীন-জার্মানি মিডিয়া ব্যক্তিদের যৌথ উদ্যোগে নির্মিত ‘চায়না টি টাইম' হলো জার্মানির বার্লিনের অ্যালেক্স টিভি চ্যানেলে প্রচারিত চীনা সংস্কৃতি-ভিত্তিক এক টিভি অনুষ্ঠান।

‘চায়না টি টাইম' নামে এ টিভি অনুষ্ঠানের প্রধান সম্পাদক জুডিথ রুক্স জার্মান টিভি স্টেশনের চ্যানেল-টুতে বিশ বছর ধরে কাজ করছেন।

তিনি বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীন ও জার্মানির সম্পর্ক দিন দিন ঘনিষ্ঠতর হয়ে ওঠা সত্ত্বেও চীন সম্পর্কে জার্মানির মিডিয়ার প্রচার যথেষ্ট নয়। চীন ও চীনা জনগণের প্রতি সাধারণ জার্মান জনগণের জানাশোনা খুব সীমিত। তিনি এবং ‘চায়না টি টাইম' টিভি অনুষ্ঠানের প্রযোজক চেং লি আশা করেন, তাদের এই দলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে আরো বেশি জার্মান জনগণ চীনা জনগণের জীবন সম্পর্কে জানতে পারবেন। তিনি বলেন, ‘আমরা মনে করি, জার্মানির অনেক লোক চীনকে জানতে চায়। তারা আরো বেশি করে চীন ও চীনা জনগণের গল্প জানতে আগ্রহী। আমাদের এই টিভি অনুষ্ঠান চীনা নাগরিকদের জীবনকে ঘিরে নির্মিত। জার্মান দর্শকেরা এর মাধ্যমে চীনা নাগরিকদের স্বপ্ন, চিন্তাধারা ও আশা জানতে পারেন। আমি মনে করি, এটি খুব চমত্কার।'

চীনের এই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য থিম খুঁজে বের করতে জুডিথ ২০১৬ সালে প্রথমবারের মতো চীনের শাংহাইয়ে যান। তিনি বলেন, চীনের শহরায়নের দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চীনের বড় শহরে উঁচু ভবন নির্মিত হয়। এসব উঁচু ভবনে বাস করা চীনা নাগরিকদের দৈনন্দিন জীবন এবং প্রতিবেশীর সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে জার্মান দর্শকদের কৌতূহল আছে। তাই তারা ‘চায়না টি টাইম' টিভি অনুষ্ঠান বিশেষ করে ‘স্কাই গার্ডেন' নামে এই অনুষ্ঠান তৈরি করেন। এ প্রসঙ্গে জুডিথ বলেন, ‘আমরা খেয়াল করেছি, চীনের বড় নগরে উঁচু ভবনে ছোট ছোট বাগান তৈরি করা হয়। এসব বাগান ভবনের বাসিন্দাদের পরস্পরকে জানা ও পারস্পরিক বিনিময়ের জায়গা হয়ে ওঠে। সেখানে প্রতিবেশীদের বন্ধুত্ব ও উষ্ণতা অনুভব করা যায়।'

খবর :
সর্বশেষ খবর চীন বিশ্ব দক্ষিণ এশিয়া

চীনা ভাষা শিখুন সংস্কৃতি জীবন বাণিজ্য চীনের বিশ্বকোষ