বর্তমান স্থান: মূল পাতা > সংস্কৃতি > প্রধান লেখা

কুকুরের সঙ্গে মানুষের চমত্কার কাহিনী নিয়ে নির্মিত তথ্যচিত্র ‘ডগস সিজন-ওয়ান’

2019-01-02 14:54:14

কুকুরের সঙ্গে মানুষের চমত্কার কাহিনী নিয়ে নির্মিত তথ্যচিত্র ‘ডগস সিজন-ওয়ান’

‘ডগস সিজন-ওয়ান' ৬ পর্বের এ তথ্যচিত্রে ৬টি কুকুরের সঙ্গে মানুষের চমত্কার কাহিনী তুলে ধরা হয়। প্রতিটি পর্বে বিভিন্ন দিক থেকে কুকুরের সঙ্গে মানুষের আচরণের অবস্থা প্রকাশিত হয়। এতে মানুষ ও সমাজের সঙ্গে কুকুরের বহু পর্যায়ের সম্পর্ক অনুধাবন করে দর্শকেরা।

এ তথ্যচিত্রের প্রথম গল্পটি যুক্তরাষ্ট্রের একটি পরিবারে ঘটে। ৩ বছর বয়সী কোরিন ভয়াবহ মৃগীরোগে আক্রান্ত হয়। তারপর পরিবারের সবার জীবন পরিবর্তিত হয়ে যায়। মৃগীরোগ যে কোনো স্থানে যে কোনো সময় ঘটতে পারে। এই রোগের পূর্বাভাস করা যায় না। তাই নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সবসময়ই যে কোনো একজন লোককে কোরিনের পাশে থাকতে হবে। কোরিনের বোন হিসেবে কার্লি এ কাজের দায়িত্ব ও চাপ পুরোপুরিভাবে বুঝতে পারে। যেমন- বন্ধুদের সঙ্গে লুকোচুরি খেলার সময় কোরিন একা একা লুকাতে পারে না, একজনকে তার সঙ্গে লুকাতে হয়। কোরিন একাএকা বাইরে যেতে পারে না, তাই কার্লিকে সবসময় তার সঙ্গে থাকতে হয়।

কার্লি এক মুহূর্ত কোরিনকে দেখতে না পেলে সে খুব উদ্বিগ্ন হয়ে ওঠে এবং নিজেকেই জিজ্ঞাস করে, কোরিন কোথায়? দিন দিন এমন ধরনের উত্তেজনাময় জীবনের পুনরাবৃত্তি হতে থাকে। এভাবে কোরিনের সঙ্গী হিসেবে থাকা কার্লির একটি অভ্যাস হয়ে ওঠে।

এক দিন লোরি নামে এক কুকুর তাদের জীবনে প্রবেশ করে। লোরি ২৪ ঘন্টা কোরিনের পাশে থাকতে পারে। রাতে কুকুর কোরিনের সঙ্গে শুয়ে থাকে। কোরিনের মৃগীরোগ দেখা দিলে কুকুর ঘেউ ঘেউ করে চিত্কার করে ওঠে। এভাবে সবকিছু ভালোর দিকে এগোতে থাকে। কোরিনের পরিবারের সদস্যদের জীবন আগের চেয়ে কিছুটা নিরুদ্বেগ হয়ে ওঠে।

খবর :
সর্বশেষ খবর চীন বিশ্ব দক্ষিণ এশিয়া

চীনা ভাষা শিখুন সংস্কৃতি জীবন বাণিজ্য চীনের বিশ্বকোষ