বর্তমান স্থান: মূল পাতা > সংস্কৃতি > প্রধান লেখা

চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে সুন্দর জায়গা ভ্রমণ

2018-08-29 10:41:36



‘ফিফটি ফার্স্ট ডেটস' চলচ্চিত্রের অনেক দৃশ্য যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াইতে সম্পন্ন করা হয়। হাওয়াই হলো বিশ্বের অন্যতম একটি দর্শনীয় স্থান। এটি হলো বিশ্বের পর্যটন শিল্পের সবচেয়ে উন্নত জায়গার মধ্যে অন্যতম। অনন্য ভৌগলিক পরিবেশের কারণে সেখানে দারুণ দৃশ্য সৃষ্টি হয়। স্থানটি বিশ্বের আলোকচিত্রীদের সবচেয়ে পছন্দের গন্তব্যস্থানও বটে।

জুলিয়া রবার্টস অভিনীত ‘ইট, প্রে, লাভ' চলচ্চিত্রের অনেক দৃশ্য ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপে সম্পন্ন করা হয়। দ্বীপটির বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন জলবায়ু ও দৃশ্য পর্যটকদের ব্যাপকভাবে আকৃষ্ট করে।

উপরে নীল আকাশ, নিচে সাগর, সাগরের পাশে এক একটি সাদা রংয়ের বাড়ি, এগুলো হলো গ্রিসের সর্বাধিক মর্যাদাপূর্ণ স্যান্তোরিন দ্বীপের দৃশ্য।

‘চকলেট' নামে চলচ্চিত্রের বেশিরভাগ দৃশ্য ফ্রান্স ও ব্রিটেনের কিছু জেলায় সম্পন্ন করা হয়।

‘এডওয়ার্ড সিসোরহ্যান্ডস' চলচ্চিত্রটি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় শুটিং করা হয়। সেখানে বিশ্বের বিখ্যাত দর্শনীয় স্থান পাম সৈকত আছে, আছে সবচেয়ে উষ্ণ ছোট জেলা।

‘কোল্ড মাউন্টেইন' চলচ্চিত্রটিতে পূর্ব ইউরোপের দেশ রোমানিয়ার অনেক সুন্দর প্রাকৃতিক দৃশ্য তুলে ধরা হয়।

বার্সেলোনাকে ইউরোপের ফুল বলে গণ্য করা হয়। ভূমধ্যসাগর সম্পর্কিত চলচ্চিত্রের কথা উল্লেখ করতে গেলে অবশ্যই এই শহরের কথা উল্লেখ করতে হবে।

স্বপ্নময় এবং রহস্যময় নিউজিল্যান্ড দ্বীপ নিঃসন্দেহে দক্ষিণ প্যাসিফিকের সবচেয়ে সুন্দর দ্বীপ। ‘দ্যা লর্ড অব দ্যা রিংস' নামে ধারাবাহিক চলচ্চিত্র প্রদর্শনের পর দ্বীপটি রাতারাতি বিশ্ববিখ্যাত হয়ে ওঠে। বিশ্বের বিভিন্ন স্থানের পর্যটকরা আকৃষ্ট হয়ে সেখানে যান।

আসলে ‘দ্যা ক্রোনিকলস অব নার্নিয়া', ‘পাইরেটস অব দ্যা ক্যারিবিয়ান্স' এবং ‘কিং কং' নামে বিভিন্ন চলচ্চিত্রের দৃশ্য নিউজিল্যান্ডে শুটিং করা হয়।

খবর :
সর্বশেষ খবর চীন বিশ্ব দক্ষিণ এশিয়া

চীনা ভাষা শিখুন সংস্কৃতি জীবন বাণিজ্য চীনের বিশ্বকোষ