বর্তমান স্থান: মূল পাতা > সংস্কৃতি > প্রধান লেখা

ইরানে ‘চীনা চলচ্চিত্রের অতীত পর্যালোচনা শীর্ষক প্রদর্শনী’

2018-08-23 15:34:12

চীনা চলচ্চিত্রের অতীত পর্যালোচনা শীর্ষক প্রদর্শনী' ১৫ থেকে ১৭ অগাস্ট পর্যন্ত ইরানের ৬টি শহরে একই সঙ্গে অনুষ্ঠিত হয়। ‘আফ্টারশক', ‘মাউন্টেইন্স মে ডেপার্ট' এবং ‘অ্যা টেল অব থ্রি সিটিস' নামে এ তিনটি চলচ্চিত্রের ফার্সি ভাষার সংস্করণ ইরানি দর্শকদের সামনে প্রদর্শিত হয়।

১৫ অগাস্ট ইরানে চীনা দূতাবাসের উদ্যোগে তেহরান চলচ্চিত্র জাদুঘরে এবারের চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে দূতাবাসের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেন, এবারের প্রদর্শনী আয়োজনের উদ্দেশ্য হলো ইরানি দর্শকদের কাছে চীনকে আরো ভালোভাবে জানানো।

ইরানে নিযুক্ত চীনা দূতাবাসের সাংস্কৃতিক কার্যালয়ের মহাপরিচালক তু সিও ছিং উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বলেন, চীন ও ইরানের সাংস্কৃতিক বিনিময় জোরদার করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আন্তর্জাতিক মঞ্চে ইরানি চলচ্চিত্রের খুব ভালো খ্যাতি আছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইরানের চলচ্চিত্রের উন্নয়ন অত্যন্ত দ্রুত। তা ছাড়া, চীন ও ইরান উভয়ই বিশাল দর্শকের অধিকারী। তাই দু'দেশের মধ্যে চলচ্চিত্রের ক্ষেত্রে বিনিময় জোরদার করা খুব প্রয়োজনীয়।

তিনি বলেন, ‘গত বছর দূতাবাসের সাংস্কৃতিক কার্যালয় তেহরানে এক সপ্তাহব্যাপী চীনা চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করে। মোট ৬টি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়। এবার আফ্টারশক, মাউন্টেইন্স মে ডেপার্ট এবং অ্যা টেল অব থ্রি সিটিস নামে এ তিনটি চলচ্চিত্র ইরানের তেহরান, ইস্পাহান এবং সিরাজসহ ৬টি শহরে একই সঙ্গে প্রদর্শিত হয়। এবারের প্রদর্শনীর মাধ্যমে আরো বেশি ইরানি দর্শক চীনা সমাজের বিভিন্ন দিক জানতে পারবেন বলে আমি আশা করি।'

ইরানের আর্ট অ্যান্ড এক্সপেরিয়েন্স সিনেমা ইনস্টিটিউটের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জাফর সানেই মোঘাদম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের কাছে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে বলেন, তাদের সংস্থা এ নিয়ে প্রথমবারের মতো চীনা দূতাবাসের সঙ্গে চলচ্চিত্র, টেলিভিশন ও সংস্কৃতি ক্ষেত্রে সহযোগিতা চালালো। দু'পক্ষের সহযোগিতার মাধ্যমে ইরান এবং চীনের চলচ্চিত্র বা টেলিভিশন অনুষ্ঠান পরস্পরের দেশে প্রদর্শিত হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

খবর :
সর্বশেষ খবর চীন বিশ্ব দক্ষিণ এশিয়া

চীনা ভাষা শিখুন সংস্কৃতি জীবন বাণিজ্য চীনের বিশ্বকোষ